Post Matric Scholarship Scheme for Minorities এর Application Process, Eligibility Criteria সহ অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জানুন

আমরা পূর্বেই পশ্চিমবঙ্গ সরকারের বিভিন্ন ছাত্র দরদী Scholarship এর সম্পর্কে আলোচনা করেছি। ছাত্র-ছাত্রীদের এই কথাটা যেন জেনে নেওয়া উচিত যে মাধ্যমিক পাস করার পর শুধুমাত্র Nabanna Scholarship ,Swami Vivekananda Merit Cum Means ScholarshipScholarship পাওয়ার একমাত্র আশ্রয়স্থল নয়। রাজ্য সরকারের মতো কেন্দ্র সরকারের পক্ষ থেকেও  প্রদান করা হয়ে থাকে Post Matric Scholarship। আজ আমরা ডিটেইলস এ আলোচনা করতে চলেছি কেন্দ্র সরকার প্রদত্ত Post Matric Scholarship Scheme for Minorities এর  সম্বন্ধে। অন্যান্য Post Matric Scholarship এর সম্বন্ধে আমরা আমাদের ওয়েবসাইটে ইতিমধ্যে আলোচনা করেছি।

Post Matric Scholarships Scheme  এর উদ্দেশ্য কি ?

Post Matric Scholarships Scheme  এর  প্রধান উদ্দেশ্য হলো মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের বৃত্তি প্রদান করা এবং অর্থনৈতিকভাবে দুর্বল সংখ্যালঘু পরিবারগুলোকে আর্থিক সাহায্য করা। এই স্কলারশিপটি ছাত্র-ছাত্রীদের শিক্ষার ভিত্তি তৈরি করবে এবং আধুনিক প্রতিযোগিতামূলক কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রগুলিতে তাদের যোগ্য করে তুলবে। ভারতের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়গুলোর আর্থসামাজিক দিকগুলো এই প্রকল্পের মাধ্যমে উন্নত হবে।

Scholarship Name 

Post Matric Scholarship Scheme for Minorities

Official Link
Starting Date 

Apply Now
Last Date 30/11/2021

Daily GK এবং Current Affair এর MCQ প্রশ্ন Practice করার জন্য ক্লিক করুন

Post Matric Scholarships Scheme  এর জন্য কারা আবেদন করতে পারবেন ?

ভারতবর্ষের যে কোন রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে বসবাসকারী মাধ্যমিক উত্তীর্ণ শুধুমাত্র সংখ্যালঘু পরিবারের (মুসলিম, শিখ, খ্রিস্টান, বৌদ্ধ, জৈন এবং পার্সি) ছাত্র ছাত্রীরা এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবে।

Post Matric Scholarships Scheme এর Distribution Process:- 

National Commission for Minorities Act, 1992 এর দ্বিতীয় বিভাগে ভারতবর্ষের মধ্যে মুসলিম, শিখ, খ্রিস্টান, বৌদ্ধ, জৈন এবং পার্সি এই 6 টি ধর্ম সম্প্রদায় কে সংখ্যালঘু হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। রেনুয়াল দরখাস্ত ছাড়াও নতুন করে আরও 5 লক্ষ সংখ্যালঘু ছাত্র-ছাত্রীদের এই স্কলারশিপ প্রকল্পের আওতায় আনা হবে বলে সম্প্রতি জানানো হয়েছে। 2011 সালের আদমশুমারি অনুযায়ী ভারতের যে সমস্ত রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল গুলি উপরিউক্ত ধর্মসম্প্রদায়গুলি সংখ্যালঘু সেই সমস্ত পরিবারের সমস্ত ছাত্র-ছাত্রীদের কে এই স্কলারশিপের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

Medhavi Scholarship 2021 কেমন করে আবেদন করবেন ? জানুন সমস্ত প্রয়োজনীয় তথ্য

কারা Post Matric Scholarships Scheme এর জন্য আবেদন করতে পারবে

ভারতের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের অন্তর্গত যেসমস্ত ছাত্রছাত্রীরা তাদের পুরো বেকার পরীক্ষাতে 50% নম্বর নিয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে এবং যাদের পরিবারের বার্ষিক আয় এক লক্ষ টাকার কম তারা সকলেই এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবে।

এই Scholarship টি প্রত্যেক বছরের জন্য নির্দিষ্ট এবং সীমিত ছাত্র-ছাত্রীদের দেওয়া হয়। এখানে পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বর এর চাইতে শিক্ষার্থীদের পারিবারিক আয়কে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়। তাই সকলের জন্যই আবেদনের সময় বার্ষিক আয়ের এর সার্টিফিকেট প্রদান আবশ্যক। একাধিক ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে সমান আয়ের ক্ষেত্রে জন্ম তারিখের ওপর ভিত্তি করে মেরিট লিস্ট প্রকাশ করা হবে।

Post Matric Scholarships Scheme এর Application Process :- 

  • National scholarship portal এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইট এর লিঙ্কটিতে “scholarships.gov.in” ক্লিক করতে হবে।
  • এরপরে “Terms and Conditions” গুলি একসেপ্ট করে নিয়ে “Continue” বাটনে ক্লিক করতে হবে।
  • পরের পেজ টিতে “Fresh Registration for Academic Year 2020-21” নামে একটি রেজিস্ট্রেশন ফর্ম আসবে। প্রয়োজনীয় সমস্ত তথ্য গুলি সঠিকভাবে সঠিক জায়গায় পূরণ করে ফরমটি সম্পন্ন করতে হবে।
  • ফরমটি পূরণ করা হয়ে গেলে “REGISTER” অপশনটিতে ক্লিক করতে হবে।
  • এরপরে প্রার্থীদের ব্যক্তিগত তথ্য, বিদ্যালয় সংক্রান্ত তথ্য পূরণ করে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট গুলি আপলোড করতে হবে।

Inspire Scholarship কি ? কেমন করে আবেদন করবেন ?

Post Matric Scholarships Scheme এর Renewal:- 

Renewal  প্রার্থীদের জন্য কোন প্রকার মেরিট লিস্ট প্রকাশ করা হবে না। যেসমস্ত ছাত্রছাত্রীরা তাদের গত পরীক্ষাতে 50% নম্বর নিয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে এবং সেই একই বিদ্যালয়ের পঠন পাঠন করছে তাদের আবেদনটি স্বয়ংক্রিয়ভাবেই অনুমোদিত হবে।

Post Matric Scholarships Scheme এর Renewal Process :-

  • Scholarship Renew করার জন্য উপরিউক্ত ওয়েবসাইটের লিঙ্কটিতে ক্লিক করতে হবে।
  • হোম পেজের উপরের দিকে থাকা ‘Log in’ অপশনটিতে ক্লিক করতে হবে। ছাত্র-ছাত্রীরা যেই শিক্ষাবর্ষে রিনিউ করতে চায় সেই বর্ষটি সিলেক্ট করতে হবে।
  • এরপরে ছাত্র-ছাত্রীদের নিজের নিজের অ্যাপ্লিকেশন নম্বর এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করতে হবে।
  • এরপরে প্রয়োজনীয় সমস্ত ডকুমেন্টগুলো আপলোড করতে হবে।

Post Matric Scholarships Scheme এর (Duration) টাকা কখন  এবং কোন  সময়ের জন্য দেওয়া হয় :- 

ছাত্র-ছাত্রীরা বর্তমানে যে কোর্সটি করছে সেই কোর্সটি সম্পন্ন হওয়া পর্যন্ত বৃত্তি প্রদান করা হবে। কিন্তু মেইনটেনেন্স পাতাটি প্রত্যেক বছরে নির্দিষ্ট পরিমাণ অনুসারে দেওয়া হবে।

Bigyani Kanya Medha Britti Scholarship কি ,তারিখ, যোগ্যতা সহ অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

Post Matric Scholarships Scheme CS Amount:- 

এই স্কলারশিপের মাধ্যমে ছাত্র-ছাত্রীদের Admission Fees /Tuition Fees এবং রক্ষণাবেক্ষণের জন্য প্রকৃত আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়।

Admission Fees  and Tuition Fees :-

  • একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণীর সকল ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য বার্ষিক 7000 টাকা করে দেওয়া হয়।
  • একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণীতে যেসমস্ত ছাত্রছাত্রীরা বিভিন্ন প্রকার টেকনিক্যাল কোর্স কিংবা ভোকেশনাল কোর্স নিয়ে পড়াশোনা করছে তাদের 10000 টাকা প্রত্যেক বছরে দেওয়া হয়।
  • আন্ডারগ্রাজুয়েট এবং পোস্ট গ্রাজুয়েট কোর্স এর সকল ছাত্রছাত্রীদের বার্ষিক 3000 টাকা করে দেওয়া হয়।

Maintenance Fees : – 

  • একাদশদ্বাদশ শ্রেণীতে ভোকেশনাল কোর্স এ যারা হোস্টেলে থেকে পড়াশোনা করছে তাদের প্রতি মাসে 380 টাকা করে এবং যারা বাড়ি থেকে পড়াশোনা করছে তাদের 230 টাকা করে দেওয়া হয়।
  • Undergraduate এবং Postgraduate কোর্সে উপরোক্ত ক্রম অনুসারে 570 টাকা এবং 300 টাকা করে প্রতিমাসে দেওয়া হয়।
  • Phil এবং Ph.D করছে হোস্টেলে থেকে পড়াশোনা করলে 1200  টাকা প্রতি মাসে এবং সাধারণভাবে বাড়ি থেকে পড়াশোনা করলে 550 টাকা করে দেওয়া হয়।

Sitaram Jindal Scholarship কেমন করে আবেদন করবেন ? জানুন সমস্ত প্রয়োজনীয় তথ্য

Pre Matric Scholarships Scheme এর (Eligibility Criteria) প্রয়োজনীয় যোগ্যতা :- 

Educational Qualification:- ছাত্রছাত্রীরা তাদের পূর্ববর্তী পরীক্ষায় 50% নম্বর নিয়ে উত্তীর্ণ হলে তারা এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবে।

Family  Income : -প্রার্থীদের বার্ষিক পারিবারিক আয় 2 লক্ষ টাকার কম হতে হবে।

Important Documents Pre Matric Scholarships Scheme আবেদনের জন্য :- 

  • শিক্ষার্থীদের শিক্ষাগত যোগ্যতার সার্টিফিকেট,
  • শিক্ষার্থীর ব্যাংক অ্যাকাউন্ট পাস বইয়ের প্রথম পৃষ্ঠা এবং IFSC কোড।
  • শিক্ষার্থীদের নিজস্ব আধার কার্ড,
  • আধার কার্ড না থাকলে বিদ্যালয় থেকে প্রাপ্ত Bonafide Student Certificate

Bank Account Related গুরুত্বপূর্ণ তথ্য Pre Matric Scholarships Scheme আবেদনের জন্য :- 

  • প্রথমে ব্যাংকের শাখার নামটি সাবধানে সিলেক্ট করে নিতে হবে।
  • এরপরে ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট নম্বরটি সঠিক ভাবে দিতে হবে। ব্যাংকের শাখার নাম এবং IFSC কোড টি ব্যাংক কর্তৃপক্ষের থেকে যাচাই করে নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে বোর্ড।
  • আবেদনকারীরা ব্যাংক থেকে ‘Know your Customer’ (KYC) এর স্ট্যাটাস চেক করতে পারে। সহজ ট্রানজাকশন এর জন্য ব্যাংক থেকে নিজেদের KYC করে নেওয়ার পরামর্শও দিয়েছে বোর্ড।
  • ছাত্র-ছাত্রীদের ব্যাংক একাউন্টটি অবশ্যই চালু থাকতে হবে।
  • ছাত্র-ছাত্রীদের নিজেদের নামে ব্যাংক একাউন্টে থাকতে হবে।
  • ব্যাংক একাউন্ট সংক্রান্ত কোনো তথ্য ভুল হলে স্কলারশিপের আবেদনটি ব্যর্থ হতে পারে।


Rupashree Prakalpa কি ? আপনি কি আবেদন করতে পারবেন জানুন সমস্ত তথ্য

FAQ:-

1. Post  Matric Scholarships Scheme আবেদন এর Last Date কবে।?

ANS :- আবেদনের শেষ তারিখ — এই স্কলারশিপের জন্য আবেদনের শেষ তারিখ 31st November 2021 ।

2. আবেদনের সময় যে সমস্ত ডকুমেন্ট গুলি আপলোড করতে হবে তার File Size কত হওয়া প্রয়োজন ?

ANS :- আবেদনের সময় যে সমস্ত ডকুমেন্টগুলি আপলোড করতে হবে তার সাইজ 200kb এর মধ্যে হতে হবে ।

3. কিভাবে আবেদন পত্রে কোন তথ্য সংশোধন করা যাবে ?

 ANS :-  অনলাইন আবেদন পত্রটি সাবমিট করার পূর্বে আপনি ফর্মে কোন তথ্য সংশোধন করতে পারেন। তথ্য সংশোধন করার জন্য “Student login” অপশন এ ক্লিক করে Application ID দিয়ে লগইন করার পর ফরম সংশোধন করতে হবে  ।

4. Dropdown Menu তে যদি “Course name” টি খুঁজে না পাওয়া যায় তাহলে কি করতে হবে ?

 ANS :-  আবেদন করার সময় ছাত্রছাত্রীরা যদি নিজেদের কোর্সের নাম খুঁজে না পায় তাহলে অবিলম্বে তাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যোগাযোগ করে কোর্সের তালিকায় নিজেদের কোর্সটি সংযুক্ত করে নিতে হবে। এরপরেও যদি আপনি আপনার পছন্দসই সাবজেক্টই খুঁজে না পান তবে রাজ্যস্তরে কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করতে হবে। কোর্সের নাম, সময়-কাল এবং কোর্স সম্পর্কিত অন্যান্য বিভিন্ন তথ্য গুলি রাজ্য স্তর থেকে প্রদান করা হবে।

5. কিভাবে  Pre Matric Scholarships Scheme CS Online আবেদনের Status জানতে পারবেন ?

ANS :-  Scholarship Portal এর  ‘Student Login’ মেনুতে ক্লিক করে অ্যাপ্লিকেশন আইডি নম্বর এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করতে হবে। এরপরে ‘Check Your Status’ অপশনটিতে ক্লিক করলে আবেদনের স্ট্যাটাস জানতে পারা যাবে।

6. Scholarship এর টাকা ব্যাংক একাউন্টে ক্রেডিট হয়েছে কিনা কিভাবে জানবেন ?

ANS :- ব্যাংক একাউন্টে স্কলারশিপের টাকা চেক করার জন্য PFMS পোর্টালে (www.pfms.nic.in) লগইন করতে হবে। এরপরে হোমপেজে থাকা  “Know Your Payment” অপশনে ক্লিক করতে হবে।

7. কীভাবে Nodal Officer বা রাজ্য স্তরের কার্যকর তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করবেন ?

ANS :-  National Scholarship Portal এর  হোমপেজে থাকা  Ministry of Minority Affairs এর মধ্যে Nodal Officer বা রাজ্য স্তরের কার্যকর্তাদের নাম ও যোগাযোগ মাধ্যম গুলি উল্লেখ করা রয়েছে। Nodal Officer দের নাম ও যোগাযোগের মাধ্যমগুলি জানার জন্য নিচের লিঙ্কটিতে ক্লিক করুন –

Click Here

 

Leave a Comment

error

শিক্ষা জগৎ সহ চাকরি সংক্রান্ত সমস্ত আপডেট বাংলায় পাওয়ার জন্য ফলো করুন